জেফ বেজোস এর জীবনী

জেফ বেজোস এর জীবনী । অ্যামাজনের জেফ বেজোস

জেফ বেজোস হলেন একজন প্রখ্যাত ব্যবসায়ী, ইঞ্জিনিয়ার, ও প্রথম জন যে আমাজন ডট কম নামক জনপ্রিয় বিক্রয় ও মার্কেট ই-কমার্স সাইট চালু করেছেন। তিনি 1964 সালে নিউ মেক্সিকো শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি প্রথমে প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া শুরু করেন এবং পরবর্তীতে কার্নেজি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন।

বেজোস সাধারণত অ্যামাজন ডট কম নামক প্রতিষ্ঠান পরিচালনার জন্য পরিচিত। তিনি একটি ই-কমার্স ও কারখানা মডেল প্রতিষ্ঠান তৈরি করে দিয়েছেন যা পরিবার পরিচালিত। তিনি সাধারণত বিশ্ব জনগণের মাঝে একটি বিলিয়ন ডলার অর্থবছর অর্জন করেন।

বেজোস আরও প্রকল্প এবং কাজ করেন, যেমন ব্লু ওরিজিন নামক বাইসাইকেল উদ্যোগ, ডিজিটাল পাঠশালা এবং এই সাথে সাথে কমার্স ও ইন্টারনেট যোগাযোগ উন্নয়ন

জেফ বেজোস এর বাল্যকাল

বিল গেটস এর জীবনী । বিল গেটস এর উক্তি। বিল গেটস এর সাফল্য

মার্ক জাকারবার্গ এর জীবনী। ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা

স্টিভ জবস এর জীবনী। অ্যাপল প্রতিষ্ঠাতা

জেফ বেজোস, বর্তমান আমেরিকার সবচেয়ে ধনবান ব্যক্তি এবং এমাজন ডট কম এর সংস্থাপক, তিনি তাঁর বাল্যকালে অনেক বৃহত্তর একজন অত্যন্ত তালামুলী ও স্বদেশপ্রেমী ছিলেন।

জেফ বেজোসের জন্ম ১২ জানুয়ারি ১৯৬৫ সালে নিউ মেক্সিকো সিটি এলপ্যাসো এল এস এস এস এফ হাসপাতালে হয়েছে। তিনি তাঁর বাল্যকালের অধিকাংশ সময় ফ্লরিডায় কাটিয়েছেন, যেখানে তাঁর পিতা তিনি আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে পরিষেবা করেন।

জেফ বেজোস এর পরিবার অনেকটা সম্পদশালী ছিল, তবে তিনি নিজেকে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ করেছিলেন এবং একটি নিজস্ব ক্যারিয়ার তৈরি করতে চেষ্টা করেছিলেন। তাঁর পরিবার তাঁর বিদেশে পড়াশোনার জন্য অনেকটা উৎসাহী নয় ছিল তবে জেফ বেজোস প্রথম হাফে উইলিংটন স্কুলে পরে প্রিন্স

জেফ বেজোস এর বাল্যকালে বই পড়াশোনার অভ্যাস ছিল এবং তিনি অনেক সময় লাইব্রেরি এ যাওয়ার ক্ষমতা ধরে রাখতেন। তিনি আমেরিকান বাংলাদেশ স্কুলে পড়তেন এবং তাঁর মাতৃভাষা বলা উচিত ছিল তাই তিনি সময় সময় বাংলা বই পড়ে থাকতেন।

জেফ বেজোস এর সামাজিক জীবন খুবই নিঃস্বার্থ ছিল। বাল্যকালে তিনি মানব সেবা কাজে অংশগ্রহণ করে যেতেন এবং তাঁর পরিবারের সঙ্গে তিনি সম্পদ ভাগ করেন।

জেফ বেজোস বাল্যকালে যে সম্পদ অর্জন করেছেন তা তিনি পরবর্তীতে আমাজন ডট কম নামক স্থাপনায় পুনরায় নির্দিষ্ট করেছেন।

জেফ বেজোস কেন বিখ্যাত

জেফ বেজোস বিখ্যাত হওয়ার পেছনে একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ হল তিনি একটি ব্যবসায়ী হিসেবে আমেরিকার সবচেয়ে বেশি টেকসই ব্যবহৃত ওয়েবসাইট ফেসবুকের মতো একটি প্লাটফর্ম তৈরি করে সফলভাবে ব্যবসা করেছেন। তাঁর নির্মিত কোম্পানি আমাজন ডট কম, যা অনলাইন মার্কেটপ্লেস ও একটি ক্লাউড সার্ভিস প্রদান করে, বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও সফল ই-কমার্স প্লাটফর্ম হিসেবে পরিচিত।

বেজোস একজন জিনিয়াস হিসেবে পরিচিত যাঁর চমৎকার বৈশিষ্ট্যের মধ্যে সেটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হলো প্রতিবাদশী মানসিকতা। বেজোস একজন দৃষ্টান্তবাদী হিসেবে পরিচিত, যাঁর পক্ষ নেওয়া হলে তিনি কিছুই সহজতর প্রতিষ্ঠা করতে পারেন।

জেফ বেজোস ও তার স্ত্রী

জেফ বেজোস একজন সফল ব্যবসায়ী এবং তিনি মার্কিন ইন্টারনেট কোম্পানি আমাজন ডট কমের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী হিসাবে পরিচিত। জেফ বেজোসের বৈবাহিক জীবনের সূত্র এখনও সংগঠিত নয়।

জেফ বেজোসের প্রথম স্ত্রী হিসেবে ম্যাকজি টুটল ছিলেন, যাঁর সাথে তিনি বিবাহ বন্ধনে বাঁধা ছিলেন 1993 সালে। তাঁরা তিন সন্তান প্রসব করেন, যাদের নাম হল ব্যাস্ত বেজোস, প্রেসটন বেজোস এবং আডিসন বেজোস। তাঁদের বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছিল 2019 সালে।

বর্তমানে, জেফ বেজোসের প্রেমিকা হিসেবে লৌরেন সানচেজ নামের একজন একটি আমেরিকান টিভি প্রস্তুত ও ডাচ ও মেকানিক্স ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে সম্পর্কে জানা গেছে। তিনি বর্তমানে জেফ বেজোসের সঙ্গে একটি সম্পদ বিভাগ উপস্থাপন করেন।

জেফ বেজোস ও তার সম্পদ

জেফ বেজোস হলেন একজন আমেরিকান ব্যবসায়মান ও প্রতিষ্ঠাতা। তিনি আমাজন ডট কম এবং উইপ এমএস এর প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রাথমিক অনলাইন কিতাব বিক্রেতা ছিলেন।

জেফ বেজোস একটি সম্পদমত্ত ব্যক্তি হিসাবে পরিচিত হতে পারেন। তিনি এখন পৃথিবীর সবচেয়ে ধনশালী ব্যক্তির একজন হিসাবে গণ্য হয়। 2021 সালের এপ্রিল মাসের একটি প্রতিবেদন অনুসারে, তাঁর মোট সম্পদ প্রায় ১৮৪ বিলিয়ন ডলার। এটি বর্তমানে পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি সম্পদ মালিকানা একটি।

জেফ বেজোস একটি পৃথিবীজুড়ে পরিচিত ও সম্পদমত্ত ব্যবসায়ী হিসাবে মুক্তি পেতেন। তিনি সম্পদ মালিকদের তালিকায় সবচেয়ে উচ্চতম জনসংখ্যা বিশ্বাসযোগ্যতা সংখ্যা একজন হিসাবে আছেন।

জেফ বেজোস এর সফলতার কারন

জেফ বেজোসের সফলতার কারণ অনেক উপাদান ছিল, একটি উপাদান হলো তার প্রতিবাদিতা মনে রাখা এবং পরিকল্পনা করা উচিত এবং নিয়মিত ভিত্তিতে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। জেফ বেজোস কম্পানি স্থাপনের সময় তার দিক থেকে বিপদজনক হিসাব করে তার কাজ শুরু করেছিলেন। তিনি তাঁর কম্পানির বাজার হার্ভার করার উদ্দেশ্যে নিয়মিত গ্রাহক পর্যালোচনা করে তাঁর পণ্য এবং পরিষেবার মান উন্নয়নের উদ্দেশ্যে অবদান রাখেন। এছাড়াও, জেফ বেজোস একটি প্রবল বিশ্বাসের ধারণা রাখেন যে তাঁর কম্পানি বাজারের উপর নির্ভর করবে না। সেই জন্য তিনি স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রি করতেন যার উদ্দেশ্যে তাঁর কম্পানি বাজারে নির্ভরশীল হতে না পারে।

Leave a Reply

Shopping cart

0
image/svg+xml

No products in the cart.

Continue Shopping
x